শিরোনাম :
নবীনগর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মেহেদী হাসান জুরালের নির্বাচনী অফিস উদ্বোধন নির্বাচনী প্রচারণায় এগিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী এইচ এম আল আমিন আহমেদ স্থানীয় জাতীয় সংসদ সদস্য ফয়জুর রহমান বাদল এর নির্দেশনায় সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে দু”পক্ষের সম্মতিতে বাড়ীতে ফিরলেন জামিনে থাকা হত্যা মামলার আসামীরা বিদুৎতের খুটি থেকে তিনটি ট্রান্সমিটার চুরি কৃষ্ণচূড়া ফুলের রঙে সেজেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের  ভিটিবিষাড়ার পথঘাট। নবীনগর ইচ্ছাময়ী পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত নবীনগর ইচ্ছাময়ী পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত নবীনগর ইচ্ছাময়ী পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত মোঃ আব্দুল কাইয়ুমের জন্য দোয়া চেয়েছেন পরিবার মোঃ আব্দুল কাইয়ুমের জন্য দোয়া চেয়েছেন তার পরিবার
বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০৬:৩৬ পূর্বাহ্ন

সভাপতির নির্দেশে ব্যাংকে টাকা জমা দেন নি অফিস সহকারী:

প্রতিনিধির নাম / ৩৪০ বার
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২৩

সভাপতির নির্দেশে ব্যাংকে টাকা জমা দেন নি অফিস সহকারী: নবীনগর উপজেলার রতনপুর আব্দুল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তানজিনা আক্তার আলেয়া অন্যত্র চলে গেলেও বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক কাজী মোশারফ উল্লাহ এর কাছে বিদ্যালয়ের আই আই ই এন সম্বলিত মোবাইল সিমটি দিয়ে যাননি। এ ব্যাপারে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক কাজী মোশারফ উল্লাহ ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলা শিক্ষা অফিসারকে বিষয়টি অবগত করেছেন। অন্যদিকে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সৈয়দ জাহিদ হোসেন শাকিলের নির্দেশনায় প্রধান শিক্ষক নিয়োগ না হওয়ায় চলমান কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার জন্য এক লক্ষ ত্রিশ হাজার টাকা ব্যাংকে জমা না দিয়ে হাতে জমা রেখেছেন বলে জানিয়েছেন বিদ্যালয়ের অফিস সহায়ক আশরাফুল ইসলাম। হাতে টাকা রাখার ব্যাপারে মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোকাররম হোসেন বলেন ” এটা বিধি বহির্ভূত কাজ। আমি অফিস সহকারীকে বিদ্যালয়ের সকল টাকা ব্যাংকে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছি। বিদ্যালয়ের সদস্য কাজী মেহেদি হাছান ও অনিয়মের কথা স্বীকার করেন। বিদ্যালয়ের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য অসুস্থ থাকায় তার ছেলে হাবিবুল্লাহ খান জানান,” সভাপতি সদস্যদের কথা গুরুত্ব না দিয়ে নিজের ইচ্ছামত ই সিদ্ধান্ত নেন বলে আমার আম্মা আমাকে বলেছেন”তিনি এই অনিয়মের দ্রুত তদন্ত প্রত্যাশা করেছেন। এ ব্যাপারে জেলা শিক্ষা অফিসার জুলফিকার হোসেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের আবেদন প্রাপ্তির কথা স্বীকার করে বলেন ” বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেয়ার জন্যে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে” বিদ্যালয়ের সভাপতিকে ফোন করলে তিনি রিসিভ করেননি।

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরো সংবাদ