শিরোনাম :
নবীনগর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মেহেদী হাসান জুরালের নির্বাচনী অফিস উদ্বোধন নির্বাচনী প্রচারণায় এগিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী এইচ এম আল আমিন আহমেদ স্থানীয় জাতীয় সংসদ সদস্য ফয়জুর রহমান বাদল এর নির্দেশনায় সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে দু”পক্ষের সম্মতিতে বাড়ীতে ফিরলেন জামিনে থাকা হত্যা মামলার আসামীরা বিদুৎতের খুটি থেকে তিনটি ট্রান্সমিটার চুরি কৃষ্ণচূড়া ফুলের রঙে সেজেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের  ভিটিবিষাড়ার পথঘাট। নবীনগর ইচ্ছাময়ী পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত নবীনগর ইচ্ছাময়ী পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত নবীনগর ইচ্ছাময়ী পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত মোঃ আব্দুল কাইয়ুমের জন্য দোয়া চেয়েছেন পরিবার মোঃ আব্দুল কাইয়ুমের জন্য দোয়া চেয়েছেন তার পরিবার
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০৯:০২ পূর্বাহ্ন

নবীনগর পশ্চিম পাড়ায় সরকারি খাল বালু দিয়ে ভরাট বন্ধ করে দেওয়ার পরও উচ্ছেদ হয়নি বাঁশের বেড়িবাঁধ

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতা নিউজ / ৬৮৭ বার
আপডেট : বুধবার, ১০ মে, ২০২৩
ছবি জনতা নিউজ

নিজস্ব প্রতিবেদক, জনতা নিউজ || ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর পৌর এলাকার নবীনগর পশ্চিমপাড়ার হযরত আমেনা (রাঃ)মাদ্রাসার পূর্ব পাশের সরকারি খাল অবৈধ উদ্দেশ্যে ভড়াটের অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। এই খালটি নবীনগর পশ্চিম পাড়া দানা মিয়ার বাড়ীথেকে আলমনগর নগর তিন রাস্তার বা টিনের মসজিদ পর্যন্ত দৈর্ঘ্য। ৩৬২৯বিএস দাগ এবং ১৩৪১বিএস দাগের ৭৩ শতক খালটি নবীনগর পশ্চিম এলাকার একমাত্র পানি নিষ্কাশনের একমাত্র খাল। এই খালের মহিলা মাদ্রাসার পূর্ব দিকের বিশ শতক খাল অবৈধ ভাবে ভরাট করার জন্য খালের মাঝ বরাবর বাঁশের বেড়িবাঁধ দেয় মাদ্রাসার সুপার আব্দুল মতিন।

এই খালটির ভরাট বন্ধের জন্য ০৩/০৪ /২০২৩ তারিখে এলাকাবাসীর পক্ষে সহকারী কমিশনার ভূমি মাহমুদা জাহান বরাবর আবেদন করেন গোলাম হোসেন মাষ্টার। অভিযোগ পাবার পর ভূমি অফিসের নির্দেশনায় বালি ভরাট বন্ধ করা হলেও উচ্ছেদ হয়নি বাঁশের বেড়িবাঁধ। বরং সরকারি নিষেদ অমান্য করে গোপনে বালু দিয়ে খালটি ভরাটের চেষ্টা করা হচ্ছে।

মাদ্রাসার সুপার মাওলানা মোহাম্মদ আবদুল মতিন ও ২নং ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার দেলোয়ার হোসেন কোটি টাকা মূল্যের এই খালটি ভরাট করে মার্কেট নির্মাণ করবে বলে ধারনা করেন গোলাম হোসেন মাষ্টার। এই খালটি যথাযথ ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে হতে পারে নবীনগর পৌর এলাকার জনগনের প্রশান্তির জায়গা।খালের দুইপাশের তীর উদ্ধার করে নাগরিকদের জন্য সকাল সন্ধা হটার রাস্তা হতে পারে।দুই তীরে পৌর পার্কও হতে পারে। তাছাড়া দেশীয় প্রজাতির মাছের প্রজননক্ষেত্র ধ্বংস হবে খালটির পানি প্রবাহ বন্ধ হলে। তাছাড়া নবীনগর পৌর শহরের পশ্চিম পাড়ায় অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটলে আগুন নিবারনের জন্য কোন জলাশয় নেই।এই খালটিতে পানির প্রবাহ থাকলে যেকোন সময় জরুরি প্রয়োজনে পানি ব্যবহার করা যাবে।

খাল ভরাটের অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে মাদ্রাসা সুপার মাওলানা আব্দুল মতিন কে বারবার মোবাইলে কল দিলেও রিসিভ করেননি।

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরো সংবাদ