শিরোনাম :
নবীনগর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মেহেদী হাসান জুরালের নির্বাচনী অফিস উদ্বোধন নির্বাচনী প্রচারণায় এগিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী এইচ এম আল আমিন আহমেদ স্থানীয় জাতীয় সংসদ সদস্য ফয়জুর রহমান বাদল এর নির্দেশনায় সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে দু”পক্ষের সম্মতিতে বাড়ীতে ফিরলেন জামিনে থাকা হত্যা মামলার আসামীরা বিদুৎতের খুটি থেকে তিনটি ট্রান্সমিটার চুরি কৃষ্ণচূড়া ফুলের রঙে সেজেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের  ভিটিবিষাড়ার পথঘাট। নবীনগর ইচ্ছাময়ী পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত নবীনগর ইচ্ছাময়ী পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত নবীনগর ইচ্ছাময়ী পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটি অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত মোঃ আব্দুল কাইয়ুমের জন্য দোয়া চেয়েছেন পরিবার মোঃ আব্দুল কাইয়ুমের জন্য দোয়া চেয়েছেন তার পরিবার
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন

নবীনগরে পূর্ব বিরোধের জেরে দু’পক্ষের সংঘর্ষ, নিহত ১ আহত ৩

প্রতিনিধির নাম / ৫০১ বার
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২৩

  1. নবীনগরে পূর্ব বিরোধের জেরে দু’পক্ষের সংঘর্ষ, নিহত ১ আহত ৩
    মোঃখলিলুর রহমান খলিল

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলায় পূর্ব বিরোধের জের ধরে দু’পক্ষের সংঘর্ষে সফিনূর (৩৫) নামে এক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো দু’জন।
মঙ্গলবার রাতে উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের বাঘাউড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত সফিনূর বাঘাউড়া গ্রামের হাফিজ মিয়ার ছেলে এবং তিনি শিবপুর বাজারের কাপড় বিক্রেতা।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, কয়েক দিন আগে নবীনগর উপজেলার উত্তর কাইতলা ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামের অলেক শা-এর ওরশে সফিনূরের ছোট ভাই রুবেলকে মারধর করেন বাঘাউড়া গ্রামের কাইয়ুম মিয়ার ছেলে ফয়জুর রহমান। মঙ্গলবার রাতে রুবেলের বড় ভাই সফিনূর প্রতিপক্ষের ফয়জুর রহমানকে ওই ঘটনা জিজ্ঞেস করতে গেলে ফয়জুল ও তার বড় ভাই কসাই আবদুর রহমানসহ বাড়ির লোকজন সফিনূরের ওপর হামলা চালায় এবং তাকে কুপিয়ে আহত করেন। খবর পেয়ে রুবেল ও তাদের পক্ষের লোকজন সেখানে গেলে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে আবদুর রহমান ও ফয়জুল আহত হন। তাদেরকে নবীনগর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং পুলিশ প্রহরায় চিকিৎসা চলছে। এছাড়া রক্তাক্ত অবস্থায় রাত সাড়ে ৯টায় সফিনূরকে নবীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
নবীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিএইচও ডা. হাবিবুর রহমান জানান, হাসপাতালে আনার আগেই অতিরিক্ত রক্তপাতে তার মৃত্যু হয়েছে।
নবীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুব আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে এবং দুইজনকে আটকসহ সফিনূরকে কুপিয়ে হত্যা করার রক্তমাখা ছুড়ি উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করেছে এবং ময়নাতদন্তের জন্য সকালে জেলা মর্গে পাঠানো হবে।

Facebook Comments Box


এ জাতীয় আরো সংবাদ